4 2

Share it on your social network:

Or you can just copy and share this url
দারুচিনির গুণাগুণ ও উপকারিতা

দারুচিনির গুণাগুণ ও উপকারিতা

দারুচিনির গুণাগুণ ও উপকারিতা শুনলে অবাক হয়ে যাবেন।

  • Medium

Directions

Share

দারুচিনি একটি অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ ভেষজ। এর মিষ্টি গন্ধ ও স্বাদ এর জন্য যুগযুগ ধরে মানুষ এটি বিভিন্ন খাবারে ব্যাবহার করে আসছে। এটি খাবারের সুগন্ধ ও স্বাদ বাড়াতে অনেক বড় ভুমিকা পালন করে। এছারাও দারুচিনির অনেক ওষুধি গুন রয়েছে। শর্করা বৃদ্ধি, প্রদাহ হ্রাস, স্নায়ুবিক উন্নতিতে দারুচিনি সহায়তা করে। এছারাও সুগন্ধি মশলা হিসেবে এর সুনাম অনেক। শুধু রান্নায় গন্ধ বাড়াতে নয় ত্বক ও শরীরের বিভিন্ন উপকারে আসে এই দারুচিনি। আসুন যেনে নেই এর কিছু অসাধারন গুণাবলি
১) দারুচিনি পেটের জন্য উপকারি। অ্যাসিডিটির সমস্যা দূর করে পেটকে রাখে পরিষ্কার ও ব্যাথামুক্ত। মধুর সাথে দারুচিনি মিশিয়ে খেলে অ্যাসিডিটির সমস্যা দূর হয়।
২) জয়েন্টের ব্যাথায় দারুচিনি বেশ উপকারি, উষ্ণ গরম পানির সাথে এক চা চামচ মধু আর দারুচিনির গুরা মিশিয়ে ব্যাথা স্থানে মালিশ করলে তা উপশম হয়।
৩) টাইপ২ ডায়েবেটিসের জন্য দারুচিনি বেশ উপকারি, আধা চা চামচ দারুচিনির গুঁড়া রক্তে খারাপ কলেস্ট্রলের মাত্রা কমায় রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রন করে।
৪) ঠান্ডায় গলা ব্যাথা ও খুশখুশে কাশিতে দারুচিনি ও মধু দিয়ে চা খেলে বেশ উপকার পাওয়া যায়।
৫) ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধিতে দারুচিনির সাথে দূর্বাঘাস ও হলুদ মিশিয়ে ত্বকে লাগালে ভালো উপকার পাওয়া যায়। ব্রন রোধ করতে সাহায্য করে।
৬) বাতের ব্যাথা শরীরের হাড়ের ব্যাথায় আধা চামচ দারুচিনির গুরা এক চামচ মধুর সাথে মিশিয়ে খেলে চমৎকার উপকার পাওয়া যায়।
৭) নিয়মিত দারুচিনি খেলে সৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায়।
৮) আর্থাইটিসের সমস্যায় যারা ভুগছেন তারা এক কাপ গরম পানির সাথে দুই চামচ মধু ও দারুচিনির গুরা মিশিয়ে সকাল সন্ধ্যা খেতে পারেন।

(Visited 1,307 times, 2 visits today)

Thank you for reading!

Food Magazine

previous
তিসির উপকারিতা
next
মজাদার কেক পুডিং রেসিপি
previous
তিসির উপকারিতা
next
মজাদার কেক পুডিং রেসিপি

Add Your Comment