• Home
  • ফিচার
  • ইরানি পোলাও এবং তুর্কি “আদানি” কাবাব
0 0

Share it on your social network:

Or you can just copy and share this url
ইরানি পোলাও এবং তুর্কি “আদানি” কাবাব

ইরানি পোলাও এবং তুর্কি “আদানি” কাবাব

একসাথে দুই রেসিপি

  • Medium

Directions

Share

ইরানি পোলাও এবং তুর্কি “আদানি “কাবাব
আজকে যে কাবাবের রেসিপি দিব তা হচ্ছে আদানি কাবাব।এটা টার্কিশ কাবাব।এই ইরানি পোলাও এর সাথে টার্কিশ কাবাবগুলো খুবই ভালো লাগে।তুর্কিরা অবশ্য এসব কাবাবের সাথে বড় রুটি খেতে পছন্দ করে।

ইরানি পোলাও উপকরনঃ
★বাসমতি চাল ১ কাপ
★বারবেরি ১/২ কাপ
★পেঁয়াজ কুঁচি মাঝারি ১ টা
★রসুন কুঁচি ২ কোয়া
★ধনেপাতা /পার্সলে কুঁচি ১/৪ কাপ
★জাফরান /স্যাফ্লাওয়ার ১ চিমটি/ ১/৪ চা চামচ
★তেল ১ চা চামচ
★অলিভ ওয়েল ২ টে.চামচ
★লবন পরিমানমত
★চিনি ১ চা চামচ
পদ্ধতিঃ ★প্রথমে ১/৪ কাপ হালকা কুসুম গরম পানিতে চিনি মিক্স করে তার সাথে জাফরান/স্যাফ্লাওয়ার দিয়ে ভালোমত মিক্স করে রেখে দিতে হবে। ★বাসমতি চাল ভালোভাবে ধুয়ে পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে ১৫/২০ মিনিট।একটা প্যানে ৩ কাপ পানি নিয়ে তাতে লবন,১ চা.চামচ তেল দিয়ে ভিজিয়ে রাখা চালটা সিদ্ধ করতে হবে। ★চাল ৭০% হয়ে এলে নামিয়ে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ঝাঝরিতে রাখতে হবে পানি ঝরানোর জন্য।চাল সিদ্ধ হওয়া পানি থেকে আধা কাপ পরিমান পানি রেখে দিতে হবে। ★এবার আরেকটা প্যানে ২ টে.চামচ অলিভ ওয়েল দিয়ে তাতে কুঁচি করা পেঁয়াজ ও রসুন দিয়ে ভাজতে হবে মাঝারি আঁচে। ★পেঁয়াজ রসুন বেশি ভাজা যাবেনা,লালচেও হওয়া যাবেনা,হালকা নরম হয়ে আসলে তাতে পানি ঝরানো প্রায় সিদ্ধ চালটা দিয়ে হালকা হাতে মিক্স করতে হবে।বেশি নাড়লে চাল ভেঙে যাবে। ★তুলে রাখা চাল সিদ্ধ পানিতে জাফরান মেশানো পানি মিক্স করে চালে দিতে হবে।প্রয়োজনমত লবন দিয়ে ঢেকে ১০ মিনিট অল্প আঁচে রান্না করতে হবে। ★এবার আলাদা প্যানে অল্প তেল নিয়ে তাতে বারবেরীগুলো হালকা ভেজে নিতে হবে।অনেকটা কিসমিস যেভাবে তেলে ভাজে ওরকম।এবার এতে অল্প জাফরান মেশানো পানি দিয়ে নেড়েচেড়ে পানি শুকাতে হবে। ★১০ মিনিট পর ভাজা বারবেরীগুলো প্যানের পোলাও এর সাথে মিক্স করে নিতে হবে। ★সার্ভিং ডিশে উপরে ধনেপাতা বা পার্সলে কুঁচি দিয়ে পরিবেশন করুন বিভিন্ন রকমের কাবাব বা চিকেন বা ল্যাম দিয়ে।ভেড়ার মাংস টা আমাদের এদিকে এতটা সহজলভ্য না।তাই না পেলে কাবাব বা চিকেন নিন সাথে! হ্যাপি ইটিং!!!

আদানি কাবাব উপকরনঃ
★বিফ কিমা ১/২ কেজি
★লাল ক্যাপসিকাম কুঁচি ১/২ কাপ
★পেঁয়াজ কুঁচি বড় ১টা
★রসুন কুঁচি ৩ কোয়া
★ধনেপাতা/পার্সলে কুঁচি ১/২ কাপ
★ সুমাক ১ টে.চামচ
★ এলিপো রেড চিলি ফ্লেস্ক ১ চা চামচ
★ পমগ্রানেট / ডালিম  গুড়া ১ টে.চামচ
★গোলমরিচ(কালো)গুড়া ১/২ চা চামচ
★কাবাবচিনি গুড়া ১/২ চা চামচ
★জিরা গুড়া ১/২ চা চামচ
★ধনিয়া গুড়া ১ চা চামচ
★লবন পরিমানমত
★অলিভ ওয়েল
পদ্ধতিঃ ★মিক্সিং বোলে গুড়া উপকরন বাদে বাকি সব উপকরন একসাথে মিক্স করে নিতে হবে। ★এবার মিট স্কুইজার দিয়ে এই মিশ্রনকে স্কুইজ করে নিতে হবে। ★মিশ্রনে বাকি গুড়া উপকরনগুলো দিয়ে ভালোভাবে মেখে নিতে হবে। ★এবার লম্বা এবং চ্যাপ্টা (স্টিলের স্কেলের মত) কাবাব শিকে অল্প মিশ্রন আলতো করে চেপে চেপে বসাতে হবে।পানিতে হাত হালকা ভিজিয়ে ভিজিয়ে আঙুল দিয়ে আলতো করে চেপে চেপে কাবাবের মিশ্রন শিকের উপর থেকে নিচের দিকে মুভ করতে হবে।এতে আঙুলের ছাপ পড়ে সুন্দর দেখায়। ★সবগুলো এভাবে করা হয়ে গেলে বারবিকিউ করার চুলায় ভেজে নিতে হবে।একপাশ হয়ে গেলে উল্টে দিবেন। ★এবার শিক থেকে কাবাব ছাড়িয়ে গরম গরম উপভোগ করুন ইরানি পোলাও এর সাথে।সাথে নিতে পারেন স্পাইসি সালাদ “সালাতা হারেসা”, যা খাবারের স্বাদকে বাড়িয়ে দিবে বহুগুণ।এর রেসিপি পেজে দেওয়া আছে।
টিপসঃ ★এই কাবাবে এলিপো রেড চিলি ফ্লেস্ক এর জায়গায় আপনারা বিকল্প হিসেবে পাপড়িকা ব্যবহার করতে পারেন।যদিও আসল ফ্লেভার টা তাতে আসবেনা,তবে অনেকটাই কাছাকাছি হবে। ★তুর্কিরা এই কাবাব তৈরি করে ভেড়ার মাংস দিয়ে যা কিনা অনেক ওয়েলি এবং এতেই এর স্বাদ অনেকাংশে বাড়ে।আমি পাইনি বলে বিফ কিমা ব্যবহার করেছি। ★কাবাব গ্রিল করার সময় মাঝে মাঝেই তেল ব্রাশ করে দিবেন,এতে কাবাব গ্লেজি ও সফট থাকবে,আর খেতেও ভালো লাগবে। ★★আমার বানানো আদানি কাবাবের সিঙ্গেল ছবি তোলা হয়নি,পোলাও এবং অন্য তিনটি কাবারের সাথে একসাথে তোলা আছে,তাই আপনাদের চেনার এবং বোঝার সুবিধার্থে বলছি,প্লেটে কাঠি ছাড়া কাবাবই আদনানি কাবাব।

রেসিপি দাতা নাম— ইলা আফরোজ

ছবি—

বিঃদ্রঃ এই লেখার সকল দায়-দায়িত্ব লেখকের।

(Visited 54 times, 1 visits today)

Thank you for reading!

Food Magazine

previous
ডাম্পলিং স্যুপ
next
এ্যারাবিক কফি
previous
ডাম্পলিং স্যুপ
next
এ্যারাবিক কফি

Add Your Comment